এনবি নিউজ : রাজশাহীতে বাসযাত্রীকে মাদক মামলায় ফাঁসানোর ভয় দেখিয়ে এক লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়াসহ ছিনতাইয়ের অভিযোগে বোয়ালিয়া মডেল থানার শিরোইল টার্মিনাল পুলিশ বক্সের ইনচার্জসহ ছয় পুলিশ সদস্যকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

রাজশাহী মহানগর পুলিশ কমিশনার মো. আবু কালাম সিদ্দিক গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে এ আদেশ জারি করেন। মহানগর পুলিশের মুখপাত্র ও অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার রুহুল কুদ্দুস এ তথ্য জানিয়েছেন।

পুলিশের এই কর্মকর্তা বলেন, ‘গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে দুই নারী বাস যাত্রীর কাছ থেকে এক লাখ টাকা ছিনিয়ে নেওয়া হয় বলে পুলিশ কমিশনারের দপ্তরে অভিযোগ করা হয়েছে। ওই অভিযোগের প্রাথমিক তদন্ত শেষে শিরোইল বাস টার্মিনাল পুলিশ বক্সের ছয় জনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। বরখাস্ত ছয় জনের মধ্যে দুজন কর্মকর্তা ও চার জন কনস্টেবল। দুই কর্মকর্তা হলেন, শিরোইল টার্মিনাল পুলিশ বক্সের ইনচার্জ এটিএসআই নাসির উদ্দিন ও এএসআই সেলিম।

অভিযোগসূত্রে জানা গেছে, নারায়ণগঞ্জ ও কুমিল্লা থেকে দুজন নারী গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে বাসে করে রাজশাহীতে তাঁদের এক আত্মীয়ের বাসায় বেড়াতে আসেন। তাঁরা শিরোইল বাস টার্মিনালে নামার পরই এটিএসআই নাসিরসহ পুলিশ সদস্যেরা তাঁদের আটক করেন। এরপর ওই দুই নারীকে ইয়াবাসহ গ্রেপ্তারের হুমকি দেন তাঁরা। এ সময় ওই পুলিশ সদস্যেরা ভুক্তভোগীদের কাছে এক লাখ টাকা দাবি করেন। বাধ্য হয়ে ওই দুই নারী তাঁদের পরিবারকে বিষয়টি জানান। এরপর পরিবারের সদস্যেরা বিকাশের মাধ্যমে এক লাখ টাকা দেন। এ ছাড়াও তাঁদের দুজনের কাছে থাকা সাড়ে চার হাজার টাকা ছিনিয়ে নেওয়া হয়।

এ ঘটনার পর ওই দুই নারীর পরিবারের সদস্যেরা পুলিশ হেডকোয়ার্টারে অভিযোগ করেন। অভিযোগ পাওয়ার পর পুলিশ হেডকোয়ার্টার থেকে রাজশাহী মহানগর পুলিশ কমিশনারকে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। এরপর রাতে এটিএসআই নাসিরসহ ছয় পুলিশ সদস্যকে সাময়িক বরখাস্ত করেন পুলিশ কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক।

রাজশাহী মহানগর পুলিশের বোয়ালিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিবারণ চন্দ্র বর্মন বলেন, ‘মাদক মামলায় গ্রেপ্তার দেখানোর ভয় দেখিয়ে বিকাশের মাধ্যমে এক লাখ টাকা আদায় এবং সাড়ে চার হাজার টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় দুই নারী থানায় একটি অভিযোগ করেছেন। এ ঘটনায় তদন্ত চলছে।’