এনবি নিউজ : চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলার জঙ্গল সলিমপুরে সন্ত্রাসী মশিউরের আস্তানা থেকে ১০টি দেশীয় ও একটি বিদেশি আগ্নেয়াস্ত্র, একটি ধারালো ছোরা এবং ২২ রাউন্ড গুলি জব্দ করা হয়েছে। এছাড়া মিলিটারি পোশাক ও বাইনোকুলার এবং অবৈধ ধাতব মুদ্রাও জব্দ করেছেন র‌্যাব সদস্যরা। দুই পক্ষের মধ্যে গোলাগুলির পর পাঁচ জনকে আটক করা হয়েছে।

শনিবার রাত সোয়া ৯টা থেকে দিবাগত রাত ১টা পর্যন্ত অভিযান চলে। র‌্যাব-সন্ত্রাসীদের মধ্যে বেশ কিছু সময় ধরে গুলি বিনিময় হয়। এ সময় র‌্যাব সদস্যরা সন্ত্রাসীদের লক্ষ্য করে ১২৯ রাউন্ড গুলি ছোড়ে। গুলির শব্দে স্থানীয় লোকজনের মধ্যে দেখা দেয় আতঙ্ক।

আজ রবিবার সকালে পতেঙ্গায় র‌্যাব-৭ এর ব্যাটালিয়ন সদর দফতরে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়। এতে অভিযানের বিস্তারিত তুলে ধরেন র‌্যাব-৭ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল এম এ ইউসুফ।

তিনি বলেন, জঙ্গল সলিমপুর এলাকায় শিবলুর সেমিপাকা টিনশেড ঘরে সন্ত্রাসীদের অবস্থান করার খবর পেয়ে শনিবার রাত সোয়া ৯টার দিকে অভিযান চালানো হয়। র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে দৌড়ে পালানোর সময় পাঁচ জনকে আটক করা হয়। তাদের নিয়ে অস্ত্র উদ্ধারে গেলে মশিউরের ছেলে সন্ত্রাসী শিবলুর নেতৃত্বে একদল অস্ত্রধারী র‌্যাবকে লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ এবং লাঠিসোটা ও অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে আক্রমণ করে। এ সময় তারা আটকদের ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা চালায়। আটকদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, অভিযানের এক পর্যায়ে সন্ত্রাসীরা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ শুরু করে। র‌্যাবও ১২৯ রাউন্ড পাল্টা গুলি ছোড়ে। এ সময় কয়েকজন র‌্যাব সদস্য আহত হন। একপর্যায়ে কিছু সন্ত্রাসী দুর্গম পাহাড়ের দিকে পালিয়ে যায়। র‌্যাব সদস্যরা এলাকাটি ঘিরে রেখে পরবর্তীতে প্রায় সোয়া তিন ঘণ্টা ধরে তল্লাশি চালায়।

র‌্যাবের অভিযানে আটকরা হলেন- ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর থানার চত্তনখোলা এলাকার মৃত শামসুল হকের ছেলে রফিকুল ইসলাম মালু (৪১), লালমনিরহাট জেলার পাটগ্রাম থানার উপরামারা এলাকার মৃত কফিল উদ্দিনের ছেলে মো.সিরাজুল ইসলাম (৩৪), চাঁদপুর জেলার শাহরাস্তী থানার আহাম্মদ নগর এলাকার আব্দুল মান্নানের ছেলে মো. হাসান (৩৫), বাঁশখালীর ছনুয়া ইউনিয়নের কুতুবখালী আব্দুল লতিফপাড়ার আহামদুর রহমান ফারুকীর ছেলে মিজানুর রহমান কদর (৪০) ও সীতাকুণ্ডের জঙ্গল সলিমপুর এলাকার মৃত মজিদ শেখের ছেলে জামাল শেখ (৪৭)।

র‌্যাবের সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) নুরুল আবসার বলেন, এ ঘটনায় তিনটি অস্ত্র মামলা দায়ের করা হবে। এছাড়া র‌্যাবের উপর আক্রমন, সরকারী কর্তব্যে বাধা প্রদান, র‌্যাব এসোল্ট, মিলিটারী উপকরণ ও অবৈধভাবে ধাতব মুদ্রা রাখায় পৃথক মামলা দায়ের করা হবে।

তিনি সন্ত্রাসী মশিউর সম্পর্কে বলেন, গত বছরের ২৭ ডিসেম্বর ভোরে জঙ্গল ছলিমপুর থেকে র‌্যাবের হাতে আটক হন ২৭ মামলার আসামি, ছিন্নমূল সংগঠনের নেতা সন্ত্রাসী মশিউর রহমান। এ সময় তার কাছে থেকে দুই রাউন্ড গুলি ভর্তি ম্যাগাজিনসহ একটি বিদেশি পিস্তল, একটি ওয়ান শুটারগান, দুটি এলজি, একটি দু’নলা বন্দুক ও ১৩ রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করা হয়।
এ টি