এনবি নিউজ : কক্সবাজার-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চকরিয়ায় রাস্তা পার হতে গিয়ে পিকআপভ্যানের চাপায় চার ভাই নিহত হয়েছেন। ১০ দিন আগে মারা যাওয়া বাবার শ্রাদ্ধ শেষে বাড়ি ফেরার সময় নিহত হন তাঁরা। এ সময় একই পরিবারের আরও পাঁচজন আহত হন। তাঁদের মধ্যে দুজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

মহাসড়কের চকরিয়ার ডুলাহাজারার মালুঘাট রিংভং এলাকায় আজ মঙ্গলবার ভোর ৬টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। মালুমঘাট হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক সাফায়েত হোসেন এসব তথ্য জানান।

নিহতেরা হলেন- ডুলাহাজারা মালুমঘাট রিংভং সগীরশাহ কাটা এলাকার মৃত ডা. সুরেশ চন্দ্র শীলের ছেলে অনুপম চন্দ্র শীল (৪৭), নিরুপম চন্দ্র শীল (৪৫), চম্পক চন্দ্র শীল (৩৫) ও দীপক চন্দ্র শীল।

এ সময় একই পরিবারের আহত আরও পাঁচজনকে মালুমঘাট মেমোরিয়াল খ্রিস্টান হাসপাতাল এবং চকরিয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাতে মালুমঘাট হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক সাফায়েত হোসেন জানান, মঙ্গলবার ভোরে নিহতদের বাবা ১০ দিন আগে মারা যান। বাবার জন্য শ্রাদ্ধ শেষে বাড়ি ফিরছিলেন তাঁরা। একসঙ্গেই রাস্তা পার হওয়ার সময় কক্সবাজারমুখী নম্বরপ্লেটবিহীন একটি পিকআপভ্যান তাঁদের চাপা দেয়। গুরুত্বর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয় মালুমঘাট খ্রিস্টান হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক চারজনকে মৃত ঘোষণা করেন।

মালুমঘাট এলাকার বাসিন্দা এম আর মাহবুব জানান, দ্বীপ উপজেলা কুতুবদিয়া হতে মালুমঘাট এলাকার হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসক সুরেশ চন্দ্র শীল গত ১০ দিন আগে মারা যান। ভোরে দুর্ঘটনায় তার চার সন্তান শ্রাদ্ধ শেষে বাসায় ফিরছিলেন। একই পরিবারের আরও কয়েকজন আহত হয়েছেন।