এনবি নিউজ : আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি বলেছেন, বিএনপির মনে বড় জ্বালা, মির্জা ফখরুলের বুকে ব্যথা। কালো চশমা পড়ে কিছুই দেখতে পারেন না তারা। হায়রে জ্বালা। পদ্মা সেতু হয়েই গেল নিজের টাকায়। শেখ হাসিনা নিজের টাকায় পদ্মা সেতু করে ফেললেন। চট্টগ্রামে দক্ষিণ এশিয়ার একমাত্র ট্যানেল বঙ্গবন্ধু ট্যানেল উদ্বোধনের জন্য প্রস্তুত। প্রস্তুত তরুণ প্রজন্মের গ্রীণ প্রজেক্ট মেট্রো রেল।

তিনি আরও বলেন, বিএনপি নেতারা এখনো ক্ষমতার রঙ্গীন খোয়াব দেখছে। আপনারা খোয়াব যতো পারেন দেখেন, তাতে কোনো আপত্তি নেই। দিবা স্বপ্ন তো কতোজনেই দেখে, আপনারাও দেখতে থাকেন, তাতে কিছু আসে যায় না। ক্ষমতার পরিবর্তন হতে হলে নির্বাচন হতে হবে। নির্বাচন ছাড়া ক্ষমতা পরিবর্তনের কোনো বিকল্প নেই। দুনিয়ার সব দেশে যেভাবে নির্বাচন হয়, বাংলাদেশেও সেভাবেই নির্বাচন হবে। শেখ হাসিনা সরকার কোনো হস্তক্ষেপ করবে না। বিদেশিদের কাছে নালিশ করে বিএনপি এখন বাংলাদেশ নালিশ পার্টিতে পরিণত হয়েছে।

তিনি শনিবার বিকেলে জেলা শহরের ঐতিহাসিক ভাওয়াল রাজবাড়ি মাঠে গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের এসময় আরও বলেন, বিএনপি এখন আমাদের নিরাপদে প্রস্থান নিতে বলে, শেখ হাসিনাকে ক্ষমতা থেকে বিদায় নিতে। কোন মুখে তারা এমন কথা বলে। তারাতো আন্দোলন করতেই জানে না। বিএনপি’র নেতা কর্মীরা দেশনেত্রী বলতে বলতে মুখে ফেনা তুলে ফেলছে। অথচ দেখতে দেখতে ১৩ বছর পেরিয়ে গেলেও আপনারা আপনাদের নেত্রীর মুক্তির দাবিতে একটি মিছিলও বের করতে পারেননি। খেলা হবে, খেলা হবে, গাজীপুরের আওয়ামীলীগের নেতা কর্মীরা প্রস্তুত হয়ে যান। খেলা হবে ভোট চুরির বিরুদ্ধে, দুর্নীতির বিরুদ্ধে, লুটপাটের বিরুদ্ধে, হাওয়া ভবনের বিরুদ্ধে। খেলা হবে ডিসেম্বরে, আন্দোলনের মোকাবেলা হবে।

গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট আজমত উল্লা খানের সভাপতিত্বে সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্ডলির সদস্য ড. মো: আব্দুর রাজ্জাক এমপি ও অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম এমপি, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী অ্যাডভোকেট আ ক ম মোজাম্মেল হক এমপি, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম এমপি, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো: জাহিদ আহসান রাসেল এমপি, আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা ড. আবদুস সোবহান গোলাপ এমপি, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মেহের আফরোজ চুমকি এমপি, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, আওয়ামী লীগের সদস্য অ্যাডভোকেট এবিএম রিয়াজুল কবীর কাওছার, আনোয়ার হোসেন, সাহাবুদ্দিন ফরাজী, ইকবাল হোসেন অপু এমপি, গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ ইকবাল হোসেন সবুজ এমপি, সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি শামসুন নাহার ভূঁইয়া, সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি অধ্যাপিকা রোমানা আলী টুসি, গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মো. আতাউল্লাহ মন্ডল প্রমুখ।

শেষে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে অ্যাডভোকেট আজমত উল্লা খান ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে মো. আতাউল্লাহ মন্ডলের নাম ঘোষণা করেন।

গাজীপুর সিটি করপোরেশন গঠিত হওয়ার পর মহানগর আওয়ামী লীগ শাখার এটিই প্রথম সম্মেলন। এর আগে সবশেষ ২০১৫ সালে গঠিত হয় গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের কমিটি।

এ টি