এনবি নিউজ ডেস্ক : চোটের কারণে মাউরো ইকার্দির বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে সেপ্টেম্বরের ম্যাচগুলোতে না থাকার খবর আগে জানা গেছে। চোটের কারণে তিন-চার সপ্তাহের জন্য মাঠের বাইরে ছিটকে পড়েছেন তিনি। এই সুযোগে আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ বাছাইয়ের দলে ঠাঁই হয়েছে পাওলো দিবালা। তাঁর সঙ্গে দলে ফিরেছেন গোলরক্ষক জেরোনিমো রুলি, ডিফেন্ডার হুয়ান ফয়থ ও উইঙ্গার এমিলিয়ানো বুয়েন্দিয়া।

কোপা আমেরিকার পর আর মাঠে নামা হয়নি আর্জেন্টিনার। এবার ২০২২ কাতার বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে তিনটি গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ দিয়ে মাঠে ফিরবেন মেসি-ডি মারিয়ারা। ব্রাজিলে শেষ কোপা আমেরিকা জয়ী ২৮ জনের দল থেকে এবার বাদ পড়েছেন অগুস্তিন মার্চেসিন ও স্ট্রাইকার সার্জিও আগুয়েরো। চোটের কারণে নেই পিএসজি স্ট্রাইকার মাউরো ইকার্দি ও বায়ার লেভারকুজেন স্ট্রাইকার লুকাস আলারিওকে।

ফুটবলে সময়টা এবার ভালো যাচ্ছে দিবালার। জুভেন্টাসের নতুন কোচ মাস্সিমিলিয়ানো আল্লেগ্রির কোচিংয়ে চোট থেকে ফিরে ছন্দ খুঁজে পাচ্ছেন তিনি। প্রাক-মৌসুমটাও বেশ ভালো কেটেছে। তাই আর্জেন্টিনার দলে সুযোগ পেয়ে গেলেন এই তারকা।

আগামী সোমবার থেকে ভেনুজুয়েলাতে প্রথম অনুশীলন করবে আর্জেন্টিনা দল। সেখানেই সরাসারি ইউরোপে খেলা ফুটবলাররা যোগ দেবেন।

বাংলাদেশ সময় আগামী ৩ সেপ্টেম্বর ভোরে ভেনেজুয়েলার মুখোমুখি হবে আর্জেন্‌টনা। পরের ম্যাচ ৬ সেপ্টেম্বর। প্রতিপক্ষ চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিল। এর চার দিন পর আর্জেন্টিনা খেলবে বলিভিয়ার বিপক্ষে।

আর্জেন্টিনা দল

গোলরক্ষক : ফ্রাঙ্কো আরমানি (রিভার প্লেট) এমিলিয়ানো মার্তিনেস (অ্যাস্টন ভিলা), হুয়ান মুস্সো (আতালান্তা), জেরোনিমো রুলি (ভিয়ারিয়াল)।

ডিফেন্ডার : গনসালো মনতিয়েল (সেভিয়া), নিকোলাস তাগলিয়াফিকো (আয়াক্স), লুকাস মার্তিনেস কুয়ার্তা (ফিওরেন্তিনা), লিসান্দ্রো মার্তিনেস (আয়াক্স), নাউয়েল মোলিনা (রিয়াল বেটিস), ক্রিস্তিয়ান রোমেরো (টটেনহ্যাম হটস্পার), নিকোলাস ওতামেন্দি (বেনফিকা), হেরমান পেস্সেইয়া (রিয়াল বেতিস), হুয়ান ফয়থ (ভিয়ারিয়াল)।

মিডফিল্ডার : লেয়ান্দ্রো পারেদেস (পিএসজি), গিদো রদ্রিগেস (রিয়াল বেতিস), রদ্রিগো দে পল (অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ), এসেকিয়েল পালাসিওস (বায়ার লেভারকুজেন), জিওভানি লো সেলসো (টটেনহ্যাম হটস্পার), নিকোলাস দোমিনগেস (বোলোনিয়া), মার্কোস আকুনা (সেভিয়া), আলেহান্দ্রো গোমেস (সেভিয়া), ডি মারিয়া (পিএসজি)।

ফরোয়ার্ড : লিওনেল মেসি (পিএসজি), নিকোলাস গনসালেস (ফিওরেন্তিনা), হোয়াকিন কোররেয়া (লাৎসিও), লাউতারো মার্তিনেস (ইন্টার মিলান), কোররেয়া (অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ), এমিলিয়ান বুয়েন্দিয়া (অ্যাস্টন ভিলা), পাওলো দিবালা (জুভেন্টাস)।