এনবি নিউজ ডেস্ক : বাংলাদেশের কোভিড-১৯ টিকা সনদের অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাজ্য। আগামী ১১ অক্টোবর থেকে এটি কার্যকর হবে বলে জানানো হয়েছে। তবে, এ সময়ের আগে এসব দেশ বা অঞ্চল থেকে কেউ যুক্তরাজ্যে ভ্রমণ করলে আগের নিয়মে ভ্রমণবিষয়ক বিধিনিষেধ মেনে চলতে হবে। আর, ১১ অক্টোবরের পর থেকে দেশটিতে ভ্রমণ করলে করোনা টিকার সনদ দেখানো যাবে। যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশ হাইকমিশনের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ব্রিটিশ সরকারের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার সাইদা মুনা তাসনিম বলেন, ‘এই সিদ্ধান্ত বাংলাদেশ ও যুক্তরাজ্যের মধ্যকার উষ্ণ দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের প্রতিফলন এবং ব্যবসা, পর্যটনসহ প্রয়োজনীয় ভ্রমণে বাধা দূর করতে হাইকমিশনের কূটনৈতিক প্রচেষ্টার ফল।’ যুক্তরাজ্যের বাংলাদেশ হাইকমিশন আজ শুক্রবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে।

ব্রিটিশ সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, আগামী ১১ অক্টোবর সোমবার স্থানীয় সময় ভোর ৪টা থেকে ৪৭টি দেশ ও অঞ্চলকে লাল তালিকা থেকে অব্যাহতি দেওয়া হবে। এসব দেশ ও অঞ্চল থেকে যুক্তরাজ্যে আসা যাত্রীদের আর হোটেল কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে না। ব্রিটিশ সরকারের এই নতুন সিদ্ধান্তের ফলে আগামী ১১ অক্টোবর থেকে যুক্তরাজ্যের লাল তালিকায় থাকবে শুধু সাতটি দেশ। দেশগুলো হলো—কলম্বিয়া, ডোমিনিকান রিপাবলিক, ইকুয়েডর, হাইতি, পানামা, পেরু ও ভেনেজুয়েলা।

যুক্তরাজ্যের হেলথ সিকিউরিটি এজেন্সির (ইউকেএইচএসএ) পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, দেশটিতে এবং বিশ্বব্যাপী টিকা কার্যক্রমের অগ্রগতির অর্থ হলো—সরকার লাল তালিকা হ্রাস করতে পারবে এবং সর্বোচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ দেশগুলোর দিকে মনোনিবেশ করতে পারবে।

এর আগে গত ২২ সেপ্টেম্বর কয়েকটি দেশের সঙ্গে বাংলাদেশকেও লাল তালিকা থেকে বাদ দেয় যুক্তরাজ্য সরকার।