এনবি নিউজ ডেস্ক : ডন, কিং খান, প্রেম কিং বা রোমান্সের বাদশাহ শাহরুখ খান। আজ সেই কিং খানের জন্মদিন। ৫৭ বছরে পা রেখেছেন এই সুপারস্টার। ১৯৬৫ সালের আজকের দিনে (২ নভেম্বর) নয়াদিল্লির এক মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন তিনি।

শাহরুখ খানের প্রধান চরিত্রে প্রথম কাজ ছিল লেখ ট্যান্ডনের টেলিভিশন ধারাবাহিক ‘দিল দরিয়া’। ১৯৮৮ সালে ধারাবাহিকটির শুটিং শুরু হয়, কিন্তু নির্মাণ-বিলম্বের কারণে ১৯৮৮ সালে রাজকুমার কাপুর পরিচালিত ‘ফৌজি’ টেলিভিশন ধারাবাহিকে অভিনেতা হিসেবে তিনি আত্মপ্রকাশ করেন। বলিউডে তাঁর অভিষেক হয় ১৯৯২ সালে ‘দিওয়ানা’ সিনেমার মাধ্যমে। প্রথম সিনেমাতেই অর্জন করেন সেরা নবাগত অভিনেতা হিসেবে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার।

কর্মজীবনের শুরুর দিকে খল চরিত্রে ‘ডর’, ‘বাজিগর’ ও ‘আনজাম’ সিনেমায় অভিনয় করে পরিচিতি লাভ করেন। এরপর তিনি বাণিজ্যিকভাবে অসংখ্য সফল চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন এবং খ্যাতি অর্জন করেন। এর মধ্যে রয়েছে ‘দিলওয়ালে দুলহানিয়া লে জায়েঙ্গে’ (১৯৯৫), ‘দিল তো পাগল হ্যায়’ (১৯৯৭), ‘কুছ কুছ হোতা হ্যায়’ (১৯৯৮), ‘মোহাব্বতেন’ (২০০০) ও ‘কাভি খুশি কাভি গম’ (২০০১)।

এর পর দীর্ঘদিন নেতৃত্ব দিয়েছেন বলিউডকে। তবে ২০১৮ সালে ‘জিরো’ সিনেমা মুক্তির পর আর বড় পর্দায় নেই বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খান। ‘জিরো’ সিনেমাটিও বক্স অফিসে সাড়া জাগাতে চরমভাবে ব্যর্থ হয়েছিল। তবে এখন পত্রপত্রিকার খবর, তিন সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন কিং খান। সেগুলো হচ্ছে বলিউডের সফল পরিচালক সিদ্ধার্থ আনন্দের সিনেমা ‘পাঠান’, রাজকুমার হিরানির নাম ঠিক না হওয়া একটি ‘সামাজিক কমেডি’ আর তামিল পরিচালক অ্যাটলি কুমারের অ্যাকশনধর্মী একটি বাণিজ্যিক সিনেমা ‘লায়ন’।

দীর্ঘ ক্যারিয়ারে শাহরুখ খান ৩০টি ফিল্মফেয়ার পুরস্কারের মনোনয়ন থেকে ১৪টি পুরস্কার এবং একটি বিশেষ পুরস্কার অর্জন করেন। তিনি কোনো জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন না করলেও ২০০৫ সালে ভারত সরকার তাঁকে পদ্মশ্রী সম্মাননায় ভূষিত করে।

অভিনয়ের বাইরে শাহরুখ চলচ্চিত্র প্রযোজনা কোম্পানি রেড চিলিস এন্টারটেইনমেন্ট ও এর সহযোগী সংগঠনের সহ-চেয়ারম্যান এবং ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের দল কলকাতা নাইট রাইডার্স ও ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগের দল ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্সের সহ-কর্ণধার। তাঁকে প্রায়ই টেলিভিশন অনুষ্ঠানের সঞ্চালক ও স্টেজ শোতে পরিবেশনা করতে দেখা যায়। দেশি-বিদেশি একাধিক পণ্যের শুভেচ্ছাদূত তিনি।