এনবি নিউজ : গণপরিবহণে হাফ পাসের দাবিতে আজ মঙ্গলবারও রাজধানীর বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভ করেছেন শিক্ষার্থীরা। সায়েন্স ল্যাব মোড়, নীলক্ষেত, রামপুরা, ঢাকা কলেজ, সিটি কলেজ, আইডিয়াল কলেজসহ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সামনে শিক্ষার্থীরা জড়ো হয়ে বিক্ষোভ করেন।

এ সময় শিক্ষার্থীরা ‘হাফ পাস আমার অধিকার, নয় কোনো আবদার’ বলে স্লোগান দিতে থাকে। এ সময় নিউমার্কেট সড়কসহ বিভিন্ন এলাকায় ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হয়। গণপরিবহণ চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। হাজার হাজার মানুষ বাস থেকে নেমে হেঁটে গন্তব্যস্থলে যাওয়া শুরু করে।

সকাল ১০টা থেকে শুরু হয়ে দুপুর ১২টা পর্যন্ত চলে এ কর্মসূচি। এরপর ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে হাফ পাসের দাবি মেনে নেওয়ার সময় বেধে দেয় আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। আগামী বৃহস্পতিবারের মধ্যে দাবি না মানা হলে আবার তারা মাঠে নামবে বলেও ঘোষণা দেন।

আন্দোলনরত এক শিক্ষার্থী বলেন, ‘আমরা আমাদের এই ন্যায্য দাবি আদায়ে সরকার ও প্রশাসনকে পাশে চাই।’

এদিকে গণপরিবহণে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের ‘অর্ধেক ভাড়া’ নিশ্চিত করা এবং তাদের সঙ্গে ‘অমানবিক আচরণ’ বন্ধ করার দাবিতে রামপুরা ব্রিজ এলাকায় মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশ সোসাইটি ফর দ্য চেঞ্জ অ্যান্ড অ্যাডভোকেসি নেক্সাস (বি-স্ক্যান) নামের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। বাসে অর্ধেক ভাড়ার দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে সমর্থন জানিয়ে অবিলম্বে সড়ক পরিবহণ আইনে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিসহ ছাত্র ও বয়স্ক ব্যক্তিদের জন্য অর্ধেক ভাড়ার বিধান অন্তর্ভুক্ত করার আহ্বান জানায় সংগঠনটি। মানববন্ধন শেষে সমাবেশে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সালমা মাহবুব বলেন, দেড়শ বছর আগে করা ব্রিটিশ আমলের রেল আইনে প্রতিবন্ধীদের হাফ ভাড়ার বিধান রাখা হয়েছে এবং এখনও তা মানা হচ্ছে। অথচ বাসে সেটি কার্যকর করা হয়নি।