• বুধবার, ১২ জুন ২০২৪, ০৪:০৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:

তামিমের আচরণ বাচ্চা মানুষের মতো : সাকিব

নিউজ ডেস্ক
নিউজ ডেস্ক
আপডেটঃ : বৃহস্পতিবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ সংবাদটির পাঠক ১৩ জন

এনবি নিউজ ডেস্ক : তামিম ইকবাল বিশ্বকাপ দলে নেই। বুধবার জাতীয় দল ভারতের উদ্দেশ্যে দেশ ছাড়ার পর দলে না থাকা এবং কেন বিশ্বকাপ থেকে সরে গেছেন, এক ভিডিওবার্তায় সেটা খোলাসা করেন দেশসেরা ওপেনার।

তামিমের কথার মূল বক্তব্য যদি ধরা যায় তবে বলা যায়, তাকে বিশ্বকাপে আফগানিস্তানের বিপক্ষে না খেলতে কিংবা নিচের দিকে খেলতে বলা হয়েছিল বিসিবির উচ্চপর্যায় থেকে। বিষয়টি ভালোভাবে নেননি তামিম। নিজেই স্বীকার করেছেন তিনি উত্তেজিত হয়ে পড়েছিলেন।

কেন উত্তেজিত হয়েছিলেন, সেই ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে তামিম বলেন, ‘একটা জিনিস মনে রাখতে হবে, আমি কোন মাইন্ডসেট থেকে আসছিলাম। হঠাৎ করে একটা ভালো ইনিংস খেললাম। আমি হ্যাপি ছিলাম। এর মধ্যে আবার এসব কথা, আমার পক্ষে নেওয়া আসলে সম্ভব না। আমি ১৭ বছর পর এক পজিশনে ব্যাটিং করছি, আমি কোনোদিন ৩-৪ নম্বরে ব্যাটিংই করিনি। এমন যদি হতো, আগেও করেছি, তাহলে একটা কথা ছিল।’

‘স্বাভাবিকভাবেই আমি কথাটা ভালোভাবে নেইনি। আমি উত্তেজিত হয়ে গিয়েছিলাম। কারণ এই বিষয়টি আমি পছন্দ করিনি। আমার কাছে মনে হচ্ছে, আমাকে জোর করে অনেক জায়গায় বাধা দেওয়া হচ্ছে। ইচ্ছে করে করে। এটা ঠিক হলো, আরেকটা নতুন জিনিস দেওয়া হলো। আমার তাই মনে হয়েছে’-যোগ করেন তামিম।

তামিম পরে অভিমান করে বলেন, এসব নোংরামির মধ্যে তিনি থাকতে চান না। তার চেয়ে বরং তাকে দলে না রাখলেই ভালো।

তামিমের এমন আচরণকে বাচ্চাসুলভ মনে করছেন সাকিব। দেশ ছাড়ার আগে বেসরকারি একটি টিভি চ্যানেলে দেওয়া সাক্ষাৎকারে (যেটি আজ রাত ১১টায় প্রচার হয়) তিনি বলেন, ‘রোহিতের (শর্মা) মতো ক্রিকেটার নাম্বার সেভেন থেকে এসে ১০ হাজার করে ফেলেছে। মাঝে মাঝে সেও যদি তিন-চারে খেলে, ব্যাটিংয়ে না নামে, খুব একটা কি সমস্যা হয়? এটা আসলে আমার কাছে মনে হয়, একদম বাচ্চা মানুষের মতো, “আমার ব্যাট আমি খেলবো। আর কেউ খেলতে পারবে না।”’

তামিম কতটা টিমম্যান সেই প্রশ্নও তুললেন সাকিব। তিনি বলেন, ‘দলের প্রয়োজনে যে কারও যেকোনো জায়গায় খেলা উচিত। টিম ফার্স্ট। ১০০-২০০ করে দল হারলো, কিছু যায় আসে না। ব্যক্তিগত অর্জন দিয়ে কী করবেন আপনি আসলে? আপনি শুধু নিজের নাম কামাবেন? তাহলে কী? ইউ আর নট থিঙ্কিং অ্যাবাউট দ্য টিম, ইউ আর নট থিঙ্কিং অ্যাবাউট দ্য টিম অ্যাট অল…মানুষ এই পয়েন্টগুলাই বোঝে না।’

‘যখন দেখলেন প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে, কেন দেওয়া হয়েছে? হয়তো দলের ভালো হবে। অবশ্যই আলোচনা আছে যে না আমি পারব, আমি নিজের সেরাটা দেবো। তাহলে আপনি টিমম্যান। না হলে আপনি টিমম্যান না। নিজের রেকর্ড, সাফল্য, খ্যাতির জন্য খেলছেন’-সাকিবের সাফ কথা।

বিজ্ঞাপন


এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০

নামাজের সময় সূচি

    Dhaka, Bangladesh
    মঙ্গলবার, ১১ জুন, ২০২৪
    ওয়াক্তসময়
    সুবহে সাদিকভোর ৩:৪৩ পূর্বাহ্ণ
    সূর্যোদয়ভোর ৫:১১ পূর্বাহ্ণ
    যোহরদুপুর ১১:৫৮ পূর্বাহ্ণ
    আছরবিকাল ৩:১৭ অপরাহ্ণ
    মাগরিবসন্ধ্যা ৬:৪৬ অপরাহ্ণ
    এশা রাত ৮:১৩ অপরাহ্ণ